প্রযুক্তি

কক্ষপথ থেকে মঙ্গলে অবতরণ এর দমবন্ধ করা ৭ মিনিট , মঙ্গলে যে সকল সুবিধা দিতে সক্ষম নাসার রোবট ,

মঙ্গল গ্রহে প্রাণের সন্ধানের জন্য সূচনা হলো নতুন এক অধ্যায়ের , মঙ্গল গ্রহের মাটি স্পর্শ করার কয়েক মিনিটের মধ্যেই পৃথিবীতে ছবি পাঠিয়েছে মহাকাশ গবেষণা প্রতিষ্ঠান নাসা এর এই ছয় চাকা বিশিষ্ট রোবটটি ।

এটি মহাকাশে অবতরণ করে গত শুক্রবার , অত্যাধুনিক এই Perseverance rovers রোবটটি মঙ্গল গ্রহের আনাচে-কানাচে খতিয়ে দেখবে মঙ্গলে সত্যিই জীবন ধারণ সম্ভব কিনা ?

কক্ষপথ থেকে মঙ্গল গ্রহে অবতরণ এর ক্ষেত্রে দমবন্ধকর ৭ টি মিনিটের প্রয়োজন হয় । এই পার্সি ভারেন্স রোভার্স রোবটটি মঙ্গলে সফল অবতরণ এর সাথে সাথেই ক্যালিফোর্নিয়ায় অবস্থিত নাসার কর্মকর্তাগন আনন্দে ফেটে পড়েন

মঙ্গল কে উদ্দেশ্য করে গত ৭ মাস আগে যাত্রা শুরু করা Perseverance rovers মঙ্গলে অবতরণ এর সাথে সাথেই তার কার্য সম্পাদন করতে কাল বিলম্ব করেনি , অবতরণের কয়েক মিনিটের মধ্যেই মঙ্গলের প্রথম ছবি পাঠায় এই রোবটটি যাতে রোবটটির ছায়া স্পষ্ট দেখা যাচ্ছিল ।

Perseverance rovers এর পৃথিবীতে পাঠানো প্রথম ছবি ।

এই রোবটটি সফল হবে অবতরণের মাধ্যমে বৈজ্ঞানিকরা আশা করছেন ধীরে ধীরে মঙ্গলের অনেক বিষয়ে তাদের সামনে স্পষ্ট আকার ধারণ করবে । মঙ্গলে এপর্যন্ত যতগুলো অবতরণ হয়েছে বিজ্ঞান ও প্রযুক্তির দিক থেকে এটি সবথেকে অন্যতম ।

বৈজ্ঞানিকরা মঙ্গলে এমন একটি স্থান খুঁজে পেয়েছেন যেখানে কয়েকশো বছর আগেও বিদ্যমান ছিল বিশাল একটি রদ , আর পানি মানেই তো জীবনের চিহ্ন ।মঙ্গল গ্রহে কোন কালে প্রাণের অস্তিত্ব ছিল কিনা এ বিষয়ে অনুসন্ধান চালাবে Perseverance rovers

Perseverance rovers এ রয়েছে ।

  • ৭ ফুট পা দিয়ে নমুনা সংগ্রহ করতে সক্ষম ।
  • ২ টি মাইক্রোফোন ।
  • ২৫ টি ক্যামেরা ।

রোবটটির মেয়াদকাল ধরা হয়েছে ১০ বছর বৈজ্ঞানিকরা আশা করছেন ১০ বছর পরে মঙ্গলের নমুনা সংগ্রহের মাধ্যমে রোবটটি পৃথিবীতে ফিরিয়ে আনা সম্ভব হবে ।

ট্যাগ

আরও পড়তে পারেন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *