পড়াশোনা

লিগ্যাল নোটিশ সরকারকে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ রাখতে।

করোনা মহামারীতে শিক্ষার্থীর কথা ভেবে সকল শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান গত মার্চ মাস থেকে বন্ধ আছে। করণা পরিস্থিতি কিছুটা স্বাভাবিক হাওয়াই শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান ৪ ফেব্রুয়ারির মধ্যে খোলার প্রস্তুতি নিয়েছে সরকার।

শিক্ষার্থীদের নিরাপত্তার কথা বিবেচনা করে করণা নির্মূল না হওয়া পর্যন্ত শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ রাখার সরকার সংশ্লিষ্টদের প্রতি লিগ্যাল নোটিশ পাঠিয়েছে সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবী খন্দকার হাসান শাহরিয়ার। নোটিশে উল্লেখ আছে, করোনার পুরো সময়ে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ রেখে অনলাইনে শতভাগ ক্লাস ব্যবস্থা করা বিষয়টা।

বৃহস্পতিবার ২৮ জানুয়ারি আইনজীবী খন্দকার হাসান শাহরিয়ার নিজেই শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ রাখার নোটিশ টি সাংবাদিকদের কাছে প্রকাশ করেন। নোটিশ পাওয়ার ৭ দিনের মধ্যে সকল শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খোলার বিষয়টি বাতিল করে বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ ও প্রচার করতে বলা হয়েছে।

গত ১১ জানুয়ারি অবিলম্বে সকল শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খুলে দেওয়া লিগ্যাল নোটিস পাঠিয়েছেন, ভাওয়াল মির্জাপুর পাবলিক স্কুল এন্ড কলেজ এর প্রিন্সিপাল আব্দুল কাইয়ুমের পক্ষে সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবী ফারুক আলমগীর। শিক্ষা সচিব ও শিক্ষা অধিদপ্তরের মহাপরিচালক এর নিকট এই নোটিশ পাঠান হয়। নোটিশ পাঠানোর পর কোন পদক্ষেপ গ্রহণ না করায় আবারো ২১ জানুয়ারি রিট আবেদন করেন।

রিটে বলা হয়, শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ থাকায় ছাত্র-ছাত্রীদের ওপর বিরূপ প্রভাব পড়ছে । এ পর্যন্ত সরকার ১১ বার শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধের নোটিশ দিয়েছে। শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ থাকায় ছাত্র-ছাত্রীরা যেভাবে শিক্ষা থেকে সরে যাচ্ছে এটা শিক্ষা দিক থেকে খুবই দুঃখজনক বিষয়।শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ থাকায় ছাত্র-ছাত্রীদের মাঝে অনেক খারাপ অভ্যাস বিদ্যমান হচ্ছে। কেউ সারাদিন মোবাইল নিয়ে পড়ে থাকছে বা টিভির সামনে। এই সার্বিক দিক বিবেচনা করে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খুলে দেওয়ার কথা ছিল এই রিটে।

ট্যাগ

আরও পড়তে পারেন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *