ধর্ম

রাসূল সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম যে ১০ টি খাবার পছন্দ করতেন ।

রাসুল সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম তাঁর নিজের শরীরকে সুস্থ রাখতে যে সকল খাবার গ্রহণ করে থাকতেন , আজ হাদিস থেকে বাছাই করে এমন দশটি খাবার এর কথা উল্লেখ করবো ইনশাআল্লাহ ।

নিজের শরীরের ক্ষতিসাধন করে এমন কোন খাবার রাসূল সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম কখনই গ্রহণ করতেন না ।

রাসূল সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম-এর পছন্দনীয় দশটি খাবার

  1. খেজুর:- রাসূল সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম এর সবথেকে পছন্দনীয় খাবার ছিল খেজুর । খেজুর রক্তে শর্করার মাত্রা নিয়ন্ত্রণ করতে সহায়তা করে। এছাড়াও হাড় শক্তিশালী করে দুধ-খেজুর। মাংসপেশী তৈরি করতে সাহায্য করে দুধ।
  2. দুধ:- রাসূল সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লামের আরেকটি পছন্দনীয় খাবার দুধ । তিনি বলতেন তোমরা গরুর গোশত কম খাও এবং দুধ বেশি করে পান করো । বর্তমানে বিশ্লেষকরা বলছেন রেড মিট কম খেতে কেননা এতে বিভিন্ন ধরনের ক্ষতিকারক দিক বিদ্যমান ।
  3. মধু ও কালোজিরা :- আল্লাহর হাবিব সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম বলতেন মধু এবং কালোজিরা মৃত্যু ব্যতিত সকল রোগের মহা ঔষধ সুবহানাল্লাহ ।
  4. বারলি :- বারলি হচ্ছে গম জাতীয় এক ধরনের খাবার ।
  5. লাউ :- রাসূল সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লামের এটি অন্যতম একটি পছন্দনীয় খাবার ছিল । একটি ঘটনার কথা উল্লেখ করা যায় :- একথা রাসূল সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম একটি দাওয়াতে গেলেন , সেখানে রাসুল (সাঃ) এর সামনে গোশত দিয়ে লাউ রান্না দেওয়া হল , তিনি গোশতের টুকরাগুলো একদিকে রেখে লাউ গুলো খুঁটে খুঁটে খেতে লাগলেন , সাহাবীরা দেখে বললেন ইয়া রাসুল আল্লাহ আপনি কি লাউ পছন্দ করেন ? তিনি বললেন হ্যাঁ আমি পছন্দ করি ।
  6. তরমু এবং শসা :- রাসূল সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম অধিকাংশ সময় তরমুজ এবং শসা একসঙ্গে খেতেন ।
  7. জলপাই:- আমাদের বাংলাদেশের জলপাই এবং আরবের জলপাই এর মধ্যে কিছুটা ভিন্নতা রয়েছে । আমাদের দেশের জলপাই একটু আকারে বড় এবং টকজাতীয় হয়ে থাকে কিন্তু আরবের জলপাই আকারে ছোট এবং এর টক কম । রাসূল সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম বলেন তোমরা জলপাইয়ের তেল খাও কেননা আল্লাহ তায়ালা এপিক এর মাঝে বরকত দিয়েছেন ।
  8. কিসমিস :- আল্লাহর হাবীব সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম এর জন্য রাতে কিসমিস ভিজিয়ে রাখা হতো এবং তিনি সকালে ঘুম থেকে উঠে কিসমিস এবং পানি উভয় খেতেন ।
  9. ডালিম :- ডালিমে রয়েছে প্রচুর পরিমানে ভিটামিন এ এবং ভিটামিন সি যা শরীরে রোগপ্রতিরোধ ক্ষমতা বৃদ্ধি করে। 
  10. মাখন :- মাখনের মধ্যে যেহেতু স্বাস্থ্যকর ফ্যাট রয়েছে সে কারণে মাখনের থেকে আমরা বহু স্বাস্থ্য উপকারিতা পেয়ে থাকি।
ট্যাগ

আরও পড়তে পারেন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *