ধর্ম

জান্নাত এর জন্য কষ্ট করা চাই।

তোমাদের কি ধারণা , তােমরা জান্নাতে প্রবেশ করবে ? অথচ আল্লাহ এখনাে দেখেনি তােমাদের মধ্যে কারা জিহাদ করেছে এবং কারা ধৈর্যশীল " ( সূরা আল - ইমরান ১৪২ নম্বর আয়াত ) ।

জিহাদ একটি গুরুত্বপূর্ণ ইবাদত । জিহাদ না করে জান্নাতে চলে যাবার আশা করা যায় না । আল্লাহ সুবহানাহু ওয়া তা'আলা এই আয়াতে মুসলিমদের বলেছেন জান্নাতের পথে অনেকগুলাে ধাপ আছে । আর মুসলিমদেরকে প্রতিটি ধাপ অতিক্রম করতে হবে ।

আল্লাহর পথে জিহাদ না করেই কেউ নিজেকে জান্নাতের দাবিদার বলতে পারেনা । জিহাদের মাধ্যমে আল্লাহর পথে দৃঢ়তা ফুটে ওঠে । ইসলাম কোন আধ্যাত্মিক ধর্ম নয় , যেখানে কেবল কিছু ধার্মিক আচার - প্রথা পালনের মধ্য দিয়েই আমরা জাদুবলে জান্নাতে পৌঁছে যাবাে । ইসলামের অনুসারীদেরকে আল্লাহ তাআলা অবশ্যই পরীক্ষা করবেন । জান্নাত বিনামূল্যে অথবা অল্প শ্রমে লাভ করার জিনিস নয় । জান্নাতের জন্য কষ্ট করা চাই ।

মানুষের আমল জান্নাতে প্রবেশের জন্য যথেষ্ট নয় । এমনকি আল্লাহর দয়া ছাড়া নবীজি ( সা . ) জান্নাতে প্রবেশ করবেন না । আল্লাহর রহমত ও দয়ার কারণেই একজন মানুষ জান্নাতে যেতে পারবে , কিন্ত তার জন্য চেষ্টা করতে হবে । আন্তরিক চেষ্টা আল্লাহর রহমত ও দয়ার দরজা খুলতে পারে ।

বদরের যুদ্ধে মুসলমরা অবিশ্বাস্য বিজয় অর্জন করে। যেসব মুসলিম বদরের যুদ্ধে অংশগ্রহণ করে তারা ওহুদের যুদ্ধে যােগদান করার জন্য উন্মুখ হয়ে ছিল।অনেকেই শহীদ হয়ে যাবার জন্য দোয়া চাইছিল । কিন্তু তাদের এসব আবেগ অনুভূতি ও ইচ্ছাগুলাে মনের মধ্যেই ছিল । এই নিয়তগুলাে কতখানি সত্য তা যাচাই করার জন্য উপযুক্ত ক্ষেত্র দরকার ।

আর তাই জিহাদের প্রয়ােজন ছিল যাতে করে এর মাধ্যমে তাদের নিয়ত এর সত্যতা যাচাই করা যায় । হতে পারে তাদের মাঝে অনেকেই এমন ছিল , যারা যুদ্ধক্ষেত্রে যাবার আগ পর্যন্ত নিজে কী চাই তা নিয়ে সন্দিহান ছিল । এখনও দেখা যায় যে , আমাদের মাঝে অনেকেই শহীদ হওয়ার ইচ্ছা রাখে।কিন্তু সত্যিই কি আমরা সুযােগ পাওয়া মাত্রই সে সুযােগ এর সদ্ব্য ব্যবহার করবাে এবং জিহাদের ময়দানে ঝাঁপিয়ে পড়বাে ?

একমাত্র আল্লাহ তাআলাই সে কথা ভালাে জানেন । আর তাই তিনি আমাদের সামনে এমন পরিস্থিতি তৈরি করেন , যাতে আমাদের আন্তরের খবর প্রকাশিত হয়ে যায় ।

আরও পড়তে পারেন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *