সর্বশেষ

দুই শতাধিক স্বেচ্ছাসেবক থাকলেও মাহফিলে মামুনুল হক কে আনার অনুমতি মেলেনি।

শনিবার (১৩ ফেব্রুয়ারি ) সুনামগঞ্জের ছাতকের জামিয়া ইসলামিয়া হাফিজিয়া দারুল কুরআন মৈশাপুরৌ মাদ্রাসায় ৪৩ তম ইসলামী সম্মেলনে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থাকার কথা রয়েছে হেফাজতে ইসলামের যুগ্ম মহাসচিব মাওলানা মোহাম্মদ মামুনুল হক কে।

জানা গেছে তার আসার বার্তা পোস্টার-ব্যানার ছাপিয়ে প্রচার প্রচারণার মাধ্যমে সবাইকে জানানো হয়েছে ।

কিন্তু মাওলানা মামুনুল হক আশায় পাল্টাপাল্টি অবস্থানে রয়েছে আয়োজক কমিটি এবং প্রশাসন।

গত (১২ ফেব্রুয়ারী ) শুক্রবার জুম্মার নামাজ পড়ে মৈশাপুর গ্রামের মাহফিল আয়োজন কমিটির সাথে পুলিশ প্রশাসনের যৌথ বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়। এই বৈঠক কে মাহফিল আয়োজকদের সাথে আলোচনা করে ওসি কাজিম উদ্দিন‌। তিনি কমিটির নেতৃত্বে সাথে সার্বিক বিষয়ে আলোচনা করেন এবং মাহফিলের অনুমতি দিলেও অনুমতি দেননি মাওলানা মোঃ মামুনুল হক আনার।

কিন্তু মাহফিল কমিটির নেতৃবৃন্দ জানিয়েছে, সব ধরনের প্রস্তুতি তাদের রয়েছে। সকল প্রকার বাধা-ব্যবধান ডিঙিয়ে উক্ত সম্মেলন সফল করার প্রচেষ্টায় আয়োজক কমিটি।

এদিকে ওসি নাজিম উদ্দিন বলেছে, বিতর্কিত মাহমুদুল হককে নিয়ে যেন কোনো বিশৃঙ্খলা সৃষ্টি না হয় সেজন্য পুলিশ প্রশাসন সবসময় প্রস্তুত থাকবে বা নেওয়া হয়েছে।

এভাবে দুই পক্ষের পাল্টাপাল্টি উত্তেজনা সৃষ্টি হচ্ছে উক্ত গ্রামে।

তবে মাদ্রাসার মুহতামিম হাফেজ মাওলানা আব্দুস সামাদ জানান, মাহফিল সফল করার জন্য দুই শতাধিক স্বেচ্ছাসেবক প্রস্তুত করা হয়েছে রাতে স্থানীয় প্রশাসনের কাছ থেকে মাহফিলে মামুনুল হককে আনার অনুমতি পাবে বলে তারা আশাবাদী।

ওসি নাজির উদ্দিন জানান, মাহফিলে মামুনুল হক যেন না আসে সেদিন দেখা হচ্ছে। অনুমতি ব্যতীত যদি আনা তাহলে সেটা আইনি প্রক্রিয়ায় প্রতিহত করা হবে। সর্বশেষ বার্তা হিসেবে ওসি নাজিমুদ্দিন মাহফিলের অনুমতি দিলেও অনুমতি মেলেনি মামুনুল হক আনার।

ট্যাগ

আরও পড়তে পারেন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *