আন্তর্জাতিক

"অং সান সু চির কারাদণ্ড হতে পারে দু'বছর"

Shahriar Akash Khan : গত সোমবার (১ ফেব্রুয়ারি) সামরিক অভ্যুত্থানের পর মিয়ানমারের নির্বাচিত বেসামরিক নেত্রী অং সান সু চির বিরুদ্ধে একাধিক অভিযোগ করেছে দেশটির পুলিশ। এর মধ্যে একটি মামলা হয়েছে অবৈধ ভাবে আমদানি করা ওয়াকিটকি রাখা। এ মামলায় ২ বছর জেল হতে পারে।

সংবাদ মাধ্যম দি গার্ডিয়ানের মাধ্যমে জানা যায়, অবৈধভাবে ওয়াকিটকি রাখার অভিযোগের মামলায় সর্বোচ্চ দু'বছর কারাদণ্ড হতে পারে সু চির। সু চিকে ১৫ ই ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত রিমান্ডে নেওয়া হয়েছে। আমদানি ও রপ্তানি আইন লঙ্ঘন করে এবং যোগাযোগের অবৈধ ডিভাইস ব্যবহার করার জন্য তার বিরুদ্ধে মামলা করেছে পুলিশ।

নভেম্বরের নির্বাচনে জয় পায় সু চির এনএলডি। সু চির পাশাপাশি তার সরকারের ক্ষমতাচ্যুত প্রেসিডেন্ট উই মিন্তের বিরুদ্ধে মামলা হয়েছে। করোনা মহামারীর বিধি লংঘন করার জন্য তার বিরুদ্ধে মামলা হয়েছে বলে জানা যায়।

সু চি সহ মায়ানমারের শীর্ষ নেতাদের আটক করার কারণে দেশটির ৩০ টি শহরে ৭০ টি হাসপাতালে ধর্মঘট করেছে স্বাস্থ্যকর্মীরা।

অন্যদিকে, এনএলডির অনেক শীর্ষ স্থানীয় নেতা ও আইন প্রণেতাদেরও আটক করে সামরিক বাহিনী। দুজন আইন প্রনেতা জানান, রাজধানীর একটি সরকারি হাউসিং কমপ্লেক্সের মধ্যে অন্তত ৪০০ আইন প্রণেতাদের কে আটক করে রাখা হয়েছে।

আরও পড়তে পারেন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *