আন্তর্জাতিক

মিয়ানমারের বিরুদ্ধে জাতিসংঘের নিন্দা প্রস্তাব রুখে দিল চীন ।

চীনের ভেটোর কারণে মিয়ানমারের সেনাবাহিনীর বিপক্ষে নিন্দা প্রস্তাব পাস করতে পারল না জাতিসংঘ নিরাপত্তা পরিষদ । গত মঙ্গলবার জাতিসংঘের রুদ্ধতার বৈঠকে হুংকার হুংকিতে সীমাবদ্ধ ছিল বিশ্ব সম্প্রদায় এতে আসেনি কোন সঠিক সিদ্ধান্ত ,এদিকে মিয়ানমারের সেনাবাহিনীর বিরুদ্ধে নানা ভাবে প্রতিবাদ জানিয়ে চলেছে দেশটি সাধারন জনগন ।

মিয়ানমারের সেনা অভ্যুত্থানের বিরুদ্ধে জনগণ নানাভাবে তাদের প্রতিবাদ জানিয়েছে সোমবার রাতেই , সেনাদের ভয় কে উপেক্ষা করে কেউবা রাতের আঁধারে অতিরিক্ত গাড়ির হর্ন বাজিয়ে বা বাড়ি জানালা থেকে বিকট শব্দ করে বিভিন্নভাবে সেনা অভ্যুত্থানের বিরোধীতা করে সাধারণ জনগণ । অর্ধশতকের মিয়ানমারের সামরিক বাহিনীর অবদমিত শাসন থেকে বেরিয়ে এসে যে স্বাধীন জীবন যাপন করেছে মিয়ানমারের জনগণ , এখন পুনরায় মিয়ানমারের জনগণ সে মুক্ত জীবনের জন্য মরিয়া ।

অসহযোগ আন্দোলন গড়ে তোলার জন্য বড় শহর মুখি হচ্ছে মিয়ানমারের চিকিৎসক ও স্বাস্থ্যকর্মীরা। মিয়ানমারের সাধারণ জনগণ মনে করেন তাদের জন্য এমন পদক্ষেপ অপ্রত্যাশিত অকল্যাণকর , মঙ্গলবার নতুন সরকারের সাথে বৈঠক করেন অভ্যূত্থানের হোতা মিন অং লাই । নতুন সরকার গঠন ও দেশকে স্থিতিশীল রাখতে এমন পদক্ষেপ বলে জানিয়েছেন সেনা কর্মীরা ।

মিয়ানমার কে কেন্দ্র করে এদিন বৈঠকে বসে জাতিসংঘের নিরাপত্তা পরিষদ বরাবরের মতোই মিয়ানমারের সেনাবাহিনী দের বিরুদ্ধে কোনো শক্ত পদক্ষেপ নিতে অক্ষম হয়েছে জাতিসংঘের নিরাপত্তা পরিষদ , এমনকি চিনের ভেটো তে ভেস্তে গেছে নিন্দা প্রস্তাব ।

এ বিষয়ে জাতিসংঘের মহাসচিবের মুখপাত্র স্টিফেন দুজারিচ বলেন :- আমাদের লক্ষ্য ছিল গণতন্ত্র পুনরুদ্ধারে জানতা সরকারকে কঠোর‌ ও স্পষ্ট বার্তা দেয়ার । অবিলম্বে অংসান সুচি ও প্রধানমন্ত্রী এবং অন্যান্য NLD নেতাদের মুক্তি চাই নিরাপত্তা পরিষদ ।

এদিকে মিয়ানমারে আইনের শাসন প্রতিষ্ঠায় ও গণতন্ত্র হরন কারীদের জবাবদিহিতা নিশ্চিতে মিত্র দেশগুলোর সঙ্গে যৌথভাবে কাজ করছে যুক্তরাষ্ট্র ।

গত নভেম্বরে বিশাল ব্যবধানে পরাজয়ে ক্ষুব্দ হয়ে সেনাবাহিনী জোরপূর্বক ক্ষমতা দখল করে ও বন্দি করে অং সাং সুচি কে ।

সেনাশাসনের বিরুদ্ধে সোচ্চার হয়েছে মিয়ানমারের বিভিন্ন পেশার মানুষ , বড় শহরগুলোতে একত্রিত হয়ে ধর্মঘটের ডাক দিয়েছেন ডাক্তার ও অন্যান্য স্বাস্থ্যকর্মী গণ । সেনা অভ্যুত্থান কে মেনে নিতে নারাজ মিয়ানমার‌ বাঁশী ।

ট্যাগ

আরও পড়তে পারেন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *