আন্তর্জাতিক

বাবরি মসজিদের অদূরেই নির্মিত হচ্ছে নতুন বাবরি মসজিদ।

ভারত উপ-মহাদেশের ইতিহাসে বাবরি মসজিদ একটি আলোচিত নাম। ১৫২৭ সালে মুঘল সম্রাট বাবরের নির্দেশে মসজিদটি নির্মাণ করা হয় বলে মসজিদের নামকরণ করা হয় বাবরি মসজিদ। মসজিদ টির অবস্থান ছিল ভারতের উত্তর প্রদেশের ফরিদাবাদ জেলার অযোধ্যা শহরের রামকোট পর্বতের উচ্চ শিখরে।

বাবরি মসজিদ কে ঘিরে প্রায় ৭০ বছর ধরে মামলা চলছিল ভারতের হিন্দু ও মুসলিমদের ভিতরে। অবশেষে মামলা রায় প্রকাশ করা হয় , যা ভারতের হিন্দুদের পক্ষে ছিল। যার ফলে ভারতের বাবরি মসজিদের স্থানে রাম মন্দির স্থাপন কাজ চলমান।

কিন্তু সেই অযোধ্যায় নির্মিত হতে চলেছে বাবরি মসজিদ এর পরিবর্তে নতুন একটি মসজিদ। ভারতের প্রজাতন্ত্র দিবসে ভিত্তিপ্রস্থর স্থাপন করা হবে বাবরি মসজিদ এর পরিবর্তে নির্মিত নতুন এই মসজিদের।রবিবার বিষয়টি নিশ্চিত করেন The Indu Islamik Foundation (IICF) ২৬ তারিখে অযোধ্যায় স্থাপন করা হবে পতাকা রোপণ করা হবে বৃক্ষ যার মাধ্যমে মসজিদের নির্মাণ কাজ শুরু হবে। ভেঙে ফেলা বাবরি মসজিদ থেকে ২৫ কিলোমিটার দূরেই ৫ একর জমির উপর নির্মিত হবে এ মসজিদ টি।

ধর্মীয় হিসেবে পবিত্র এ স্থান কে ঘিরে বহু বছর ধরে ভারতের হিন্দু ও মুসলিমদের ভিতরে একটা অনৈক্য বিরাজ করছিল ,১৫২৭ সালে সম্রাট বাবর বাবরি মসজিদ নির্মাণের নির্দেশ দিলে ১৫২৮ সালে বাবরের নির্দেশে তার সেনাপতি মীর বাকী মসজিদটি নির্মাণ করেন। কিছু হিন্দুদের ভাষ্যমতে তাদের আরোদ্ধ দেবতা রামের জন্মস্থান হল অযোধ্যায়। এবং তারা বলে তাদের আরদ্ধ দেবতা রামের জন্মস্থান একটি মসজিদ নির্মাণ করা হয় , আরে ভাশ্বের জের ধরে ১৮৫৩ সালে প্রথমবারের মতো বাবরি মসজিদ কে ঘিরে বিরোধের সৃষ্টি হয়। তৎকালীন সময়ে ভারতে ব্রিটিশ শাসন চলছিল ফলে তারা এ অনৈক্য রুখতে হিন্দু ও মুসলিমদের উপসনালয় আলাদা করার সিদ্ধান্ত গ্রহণ করে , এজন্য পরবর্তীতে তারা মসজিদের ভিতরের অংশ কে মুসলিমদের জন্য এবং বাইরের অংশকে হিন্দুদের জন্য বরাদ্দ করেন।

ট্যাগ

আরও পড়তে পারেন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *