স্বাস্থ্য

সেক্স হরমোন কি ? এটি কমে যাওয়ার লক্ষণ ও প্রতিকার ।

টেস্টোস্টেরন হরমোন একজন মানুষের জন্য খুবই গুরুত্বপূর্ণ , অনেকে এটিকে সেক্স হর্মন ও বলে থাকে । এটি যদি কারো শরীর থেকে অতিমাত্রায় নেমে যায় তাহলে তার জীবনে নেমে আসতে পারে ভয়ানক যৌন দুর্বলতা।

শরীরের অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ একটি হরমোনের নাম হল টেস্টেস্টেরন , এটি প্রথমত পুরুষদের সেক্স হরমোন , তবে এটি নারীদের শরীরেও স্বল্প পরিমাণে বিদ্যমান । আর এই টেস্টোস্টেরনের মাধ্যমে পুরুষদের শুক্রাশয় এবং নারীদের ডিম্বাশয় তৈরি হয়ে থাকে , এটি বয়সন্ধিকালে ছেলেদের শারীরিক ও মানসিক পরিবর্তন সাধনের গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে ।

টেস্টোস্টেরন হরমোনের জন্য একজন ছেলের বয়সন্ধিকালে তার মাসেল বৃদ্ধি পায় , কন্ঠস্বর ভারী হয় , চুল দাড়ি এবং শরীরের অন্যান্য জায়গায় লোম বৃদ্ধিতে সহায়তা করে ।

একজন পুরুষের শরীর থেকে টেস্টোস্টেরন হরমোন বা সেক্স হরমোন কমে গেলে কি কি লক্ষণ দেখা দিতে পারে ?

  • স্বল্প পরিশ্রমে ক্লান্ত বোধ ।
  • পুরুষাঙ্গ শক্ত না হওয়া ।
  • যৌন আকাঙ্ক্ষা কমে যায় ।
  • চুল পড়ে যাওয়া ।
  • অস্বস্তি বোধ হওয়া ।
  • হাড়ের সংযোগস্থলের ব্যথা অনুভব হওয়া ।
  • পুরুষদের ক্ষেত্রে স্তনের আকার বৃদ্ধি পেতে পারে ।

বয়সন্ধিকালে একজন মানুষের শরীরে এই হরমোন সবচেয়ে বেশি পরিমাণে থাকে , অর্থাৎ একজন ছেলের শরীরে ১২ থেকে ২০ বছর পর্যন্ত টেস্টোস্টেরনের মাত্রা সবচেয়ে বেশি হয়ে থাকে , তারপর থেকে একজন পুরুষের শরীরে টেস্টোস্টেরনের মাত্রা ধীরে ধীরে কমতে থাকে এবং ৪০ বছরের পর থেকে তা কমে যায় । টেস্টোস্টেরনের মাত্রা ৪০ বছর পর থেকে কমে যাওয়াটা স্বাভাবিক তবে তা যদি অতিমাত্রায় কমে যায় সেটি অস্বাভাবিক । টেস্টোস্টেরন হরমোন সাধারণত একজন পুরুষের বীর্যের মাধ্যমে তার শরীর থেকে বের হয়ে যায় ।

একজন মানুষ তার দেহের রক্ত পরীক্ষার মাধ্যমে বুঝতে পারবেন তার শরীরে পর্যাপ্ত পরিমাণে টেস্টোস্টেরন বা সেক্স হরমোন আছে কিনা ।

শরীরে টেস্টোস্টেরনের মাত্রা কমে গেলে করণীয় কি ?

সঠিক খাদ্যাভ্যাসের মাধ্যমে শরীরে টেস্টোস্টেরনের মাত্রা নিয়ন্ত্রণ করা যায় , ব্যায়াম একজন মানুষের শরীরে বিভিন্ন রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বৃদ্ধি করতে সহায়তা করে ।

টেস্টোস্টেরনের মাত্রা বৃদ্ধির জন্য নিচে কিছু ব্যায়াম ও খাদ্যের নাম উল্লেখ করা হলো ।

  1. ভারোত্তোলন জাতীয় ব্যায়াম :- এ ধরনের ব্যায়াম মানুষের শরীরে টেস্টোস্টেরন বৃদ্ধিতে সহায়তা করে ।
  2. মানসিক চিন্তা বর্জন করতে হবে
  3. মধু সেবন করতে হবে
  4. ডিম
  5. কাঠবাদাম
  6. পালং শাক
  7. ডালিম
  8. স্বাভাবিক পরিমাণে মাংস খাওয়া ।
  9. কলা
  10. মিষ্টি আলু
  11. ডার্ক চকলেট
ট্যাগ

আরও পড়তে পারেন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *