স্বাস্থ্য

ত্বকে মধু লাগালে কী হয় ?

মধু মানুষের স্বাস্থ্যের জন্য এত ভাল হয় কেন? এর মূল কারণ হচ্ছে মৌমাছি ফুলের রস , ফলের রস , বিভিন্ন ঔষধি গাছ পালার নির্যাস সংগ্রহ করে বিধায় মহান আল্লাহ রাব্বুল আলামীন মধু কে এতো সমৃদ্ধ করে দিয়েছেন ।

এখন মধু মানুষ শুধু খায়'ই না এটি শরীরেও লাগায় এটি এখন রূপ চর্চায় সর্বত্র ব্যবহৃত হচ্ছে , বর্তমানে বিভিন্ন বিউটি পার্লারে মেয়েদের সৌন্দর্যের বর্ধনে মধু ব্যবহৃত হয়ে থাকে ।

মধুতে বিদ্যমান ভিটাইন বি, ক্যালসিয়াম, জিংক, পটাশিয়াম এবং লৌহ। উচ্চ অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট সমৃদ্ধ, ব্যাক্টেরিয়া দূরীকরণ এবং রয়েছে কার্যকর নির্যাস যা ত্বকের উজ্জ্বলতা বহুলাংশে বৃদ্ধি করে।

মধুর মধ্যে একটি ন্যাচেরাল লিকুইড বিদ্যমান যার নাম প্রপেলিজ , যেটি একটি ন্যাচারাল এন্টিসেপটিক । সাধারণত মানুষের শরীরের কোন স্থানে কেটে গেলে উক্ত স্থানে মধু দিলে দ্রুত সেরে যায় ।

দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের সময় যখন এত ঔষধ মেডিসিন আবিষ্কৃত হয় নাই , তখন আহত সৈন্যদের ক্ষতস্থান নিরাময় জন্য মধু ব্যবহার করা হতো । বাত ব্যথা নামটি আমাদের অনেকের কাছেই বেশ পরিচিত বাত রোগ নিরাময়ে মৌমাছি বেশ কার্যকরী একটি পন্থা ,যে স্থানে বাতের ব্যথা অনুভব হয় সেই স্থানে মৌমাছি কামড়ালে বাত ব্যথা ভালো হয়ে যায় । ইজিপশিয়ান এর একটি ডক্টর যে সকল মানুষ রিমোটিক ফিভারে আক্রান্ত সে সকল লোকের চিকিৎসার ক্ষেত্রে মৌমাছি ব্যবহার করেন ।

পবিত্র মহাগ্রন্থ আল কুরআনে মহান আল্লাহ রাব্বুল আলামিন দুইটি জিনিস খেয়ে শেফা হিসেবে উল্লেখ করেছেন । সেটি হলো এক কোরআন এবং দ্বিতীয় মধু এই দুইটি ব্যতীত মহান আল্লাহ তায়ালা কোন কিছুকে শেফা হিসেবে উল্লেখ করেননি ।

একজন অস্ট্রেলিয়ান সাইন্টিস কার্ল বর্ণ ফ্রেশ একটি গবেষণা তার গবেষণার বিষয় ছিল মৌমাছি কিভাবে ফুলের পরাগরেণু সংগ্রহ করে এবং তা মধুতে রূপান্তরিত করে । পরবর্তীতে তিনি উক্ত গবেষণার জন্য নোবেল পুরস্কার অর্জন করেন ।

ট্যাগ

আরও পড়তে পারেন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *