স্বাস্থ্য

সিজারের পরে কি কি সমস্যা হতে পারে?

শুরুতেই বলে রাখি সিজার একটি অপারেশন। পেট কাটার মাধ্যমে জরায়ু থেকে যখন বাচ্চা বের করে আনা হয় তাকে সিজার বলে। সিজারের সময় একজন মায়ের অনেক ধরনের ঝুঁকি থাকতে পারে।

সিজারের সময় কি কি ঝুঁকি হতে পারে?

  • সিজারের সময় একজন মায়ের সবথেকে বেশি যে ঝুঁকিতে থাকে সেটা হলো প্রচুর পরিমাণে রক্তক্ষরণ হতে পারে।
  • তারপর যেটা হয় অবশ করার জন্য যে ওষুধ বা ইনজেকশন দেওয়া হয় এটার জন্য পরবর্তীতে অনেক সমস্যা হতে পারে।
  • দুই বা দুইয়ের অধিক বাচ্চা যারা সিজারে নিয়েছে। তাদের ক্ষেত্রে যেটি দেখা যায় জরায়ুতে খাদ্যনালী বা অন্যকিছু লেগে থাকতে পারে। যেটা একজন মায়ের জন্য অনেক জটিলতার কারণ।

সিজারের পরবর্তী সময়ে কি সমস্যা হতে পারে?

  • সিজারের পরবর্তী সময়ে যখন মায়ের জ্ঞান ফিরে আসে তখন সিজার এর জায়গা টিতে অনেক ব্যথা অনুভব করতে পারে।
  • এছাড়াও সিজারের পরবর্তী সময়ে গ্যাসট্রিকের সমস্যা হতে পারে। অনেকে বলে থাকেন তাদের সিজারের পরবর্তী সময়ে যে টয়লেট হয়ে থাকে সেটা ক্লিয়ার হয়না।
  • সিজারের পরবর্তী সময়ে সব থেকে বেশি যে সমস্যা দেখা দেয়। সেটা হলো মায়ের দুধ আসতে দুই থেকে তিন দিন দেরি হয়।
  • অনেক সময় দেখা যায় সিজারের পরবর্তী সময়ে সিজারের জায়গাটিতে অর্থাৎ কাটা জায়গাটিতে ইনফেকশন হয়ে যায়। ব্যাকটেরিয়া দ্বারা আক্রান্ত হয়।
  • পরবর্তীতে যে সমস্যা দেখা দেয় অবশ করার জন্য যে ওষুধ টি বা ইনজেকশন দেয়া হয় । এটার জন্য সারাটা জীবন তাকে পিঠের ব্যথা অনুভব করতে হতে পারে।
  • অনেক এ বলে থাকে সিজারে জায়গাটি বা কাটা জায়গাটিতে চুলকায়, বা ব্যথা অনুভব করে হাঁচি-কাশি দিলে অনেক বেশি যন্ত্রণা দায়ক হয়ে ওঠে।

এই সমস্যা গুলো অনেক মায়ে আছে যারা সারাটা জীবন কষ্ট করে আর এ যন্ত্রণা সহ্য করে।

ট্যাগ

আরও পড়তে পারেন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *