স্বাস্থ্য

করোনার টিকা শুরু বাংলাদেশে।

করোনা মহামারীতে যেমন পুরো বিশ্বের সবগুলো দেশ আতঙ্কে ছিল ঠিক তেমনি আতঙ্কে ছিল বাংলাদেশ।কিন্তু এই আতঙ্ক কাটিয়ে এবার হয়তো স্বস্তিতে ফিরবে পুরা পৃথিবী সহ বাংলাদেশ।

সরকারের কেনা ৫০ লাখ ডোজ করোনার টিকা এবং ভারতের উপহার দেওয়া ২০ লাখ ডোজ সব মিলিয়ে ৭০ লাখ ডোজ করোনার টিকা নিয়ে আগামী ২৭ জানুয়ারি করোনার টিকার উদ্বোধনের দিনে বিভিন্ন শ্রেণি-পেশার ২০- ২৫ জনের দেহে করোনার টিকা দিয়ে উদ্বোধন শুরু করা হবে । অনুষ্ঠানে ভার্চুয়ালি যোগ দেবেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

গতকাল প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে আয়োজিত সংবাদ ব্রিফিংয়ে জানানো হয়। আগামী ৮ ফেব্রুয়ারি সারাদেশে করোনার টিকা দেওয়ার কার্যক্রম পরিকল্পনা করছে সরকার। কিন্তু তার আগে পর্যবেক্ষণমূলক ঢাকার ৪ টি হাসপাতালে ৪০০-৫০০ স্বাস্থ্যকর্মীকে টিকা দেওয়া হবে।

প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে সংবাদ ব্রিফিংয়ে প্রধানমন্ত্রী মুখ্য সমন্বয়ক( এসডিজি বিষয়ক) জুনেয়া আজিজের সভাপতিত্বে উপস্থিত ছিলেন আইসিটি বিভাগের সিনিয়র সচিব এন এম জিয়াউর আলম, স্বাস্থ্য সেবা বিভাগের সচিব আবদুল মান্নান, এবং স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের মহাপরিচালক আব্দুল বাশার মোহাম্মদ খুরশীদ আলম,

স্বাস্থ্য সচিব আবদুল মান্নান বলেন, আগামী বৃহস্পতিবার দুপুর দেড়টায় এয়ার ইন্ডিয়া ফ্লাইট এ ইন্ডিয়ার উপহার দেওয়া ২০ লাখ ডোজ করোনার টিকা বাংলাদেশে পৌঁছবে। এই টাকাগুলো ইপিআই স্টোরে সংরক্ষন করা হবে। এবং পরবর্তীতে বেক্সিমকোর দিয়ে কিনা চালান বাংলাদেশের পৌঁছালে ২৭-২৮ তারিখে বিভিন্ন শ্রেণী -পেশার ২০-২৫ জনকে করোনার টিকা দেওয়া।

উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে ভার্চুয়ালি যুগে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা যোগ দিবেন। টিকাদান শুরুর আগে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল, মুগদা মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল, কুর্মিটোলা জেনারেল হাসপাতালও বাংলাদেশ কুয়েত মৈত্রী হাসপাতাল এ ৪০০ থেকে ৫০০ জন কে টিকা দিয়ে সাত দিনের পর্যবেক্ষণে রাখা হবে। তবে শুরুটা কুর্মিটোলা জেনারেল হাসপাতাল থেকে শুরু হতে পারে।

বেসরকারী হাসপাতাল টিকা পাবে কি না?

বেসরকারি অনেক হাসপাতাল টিকাদানের কার্যক্রমে অংশগ্রহণ এর আবেদন করেছে। তাদের মাঝে ২০ শর্ত ছুড়ে দেয়া হয়েছে কিন্তু এখনো অনুমতি দেওয়া হয়নি। ভ্যাকসিন দেহে কত দিন কার্যকর থাকবে ভ্যাকসিন দেহে কত দিন কার্যকর থাকবে

করোনার ভ্যাকসিন দেহে কত দিন কার্যকর থাকবে?

করোনার ভ্যাকসিনের দেহে কত দিন কার্যকর থাকবে এমন প্রশ্নের জবাবে মহাপরিচালক বলেন, টিকা প্রদান করার পরের দেহে কতদিন থাকবে এটা পৃথিবীর এখনো কারোর জানা নেই। এটা নিয়ে বিস্তর গবেষণা প্রয়োজন। তবে টিকা দেওয়ার পরে এন্টিবায়োটিক তৈরি হচ্ছে কি না তা দেখার পরিকল্পনা রয়েছে।

করোনার টিকা কি সবাই নিতে পারবে?

করোনার টিকা সবাই নিতে পারবে না।বিশেষ করে গর্ভবতী মহিলা করোনার ভ্যাকসিন নিতে পারবে না । এছাড়াও ১৮ বছরের নিচে শিশুরা এই ভ্যাকসিন নিতে পারবে না। ক্যান্সারের মতো আক্রান্ত আরোগ্য ব্যক্তি টিকা দানের বাইরে থাকবে।এছাড়াও এক কোটি মানুষ দেশের বাইরে থাকে। সব মিলিয়ে সাত কোটি মানুষ টিকা পাবে না । তবে বয়স্কদের টিকা দান বড় চ্যালেঞ্জ।

ট্যাগ

আরও পড়তে পারেন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *