সারাদেশ

গ্রামের মানুষ দের ইলিশ মাছ খাওয়াতে চান সরকার।

বাংলাদেশের মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রী শ. ম. রেজাউল করিম বলেনছেন আগামী পাঁচ বছর ইলিশ রপ্তানি করা ঠিক হবে না।

তিনি বলেন , গ্রামে অনেক মানুষ আছে যারা এখনো ইলিশ মাছ খাওয়ার সুযোগ হয়নি, তাই আগে তাদের ইলিশ খাওয়ার সুযোগ করে পরে রপ্তানির কথা ভাবা যাবে।

সরকার ২০২০ সালের অক্টোবর মাসে দুই বছরের মধ্যে ১ লাখ মেট্রিক টন ইলিশ রপ্তানির কথা জানিয়েছেন।

কিন্তু বর্তমান কথার সাথে মিলালে বুঝা যাচ্ছে সরকারের মধ্যে কিছুটা ভিন্ন মতামত রয়েছে।

কেন ইলিশ রপ্তানি করতে চান না সরকার ।

মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রী শ. ম. রেজাউল করিম বলেছেন ২০১০ সালে ইলিশ মাছের উৎপাদন ছিল প্রায় ৩ লক্ষ মেট্রিক টন আর সেটা এখন বেড়ে প্রায় ৫.৩৩ মেট্রিক টনে দাঁড়িয়েছে।

তিনি বলেন , আগে গ্রামীণ বাংলার সকল মানুষকে ইলিশ খাওয়ার সুযোগ করে পরে রপ্তানি করা যাবে ।কারণ গ্রামবাংলার অনেকে আছে যারা এখনো ইলিশ মাছ খাওয়ার সুযোগ হয়নি তাই আগে তাদের ইলিশ খাওয়ার সুযোগ করে ইলিশ রপ্তানির কথা ভাবছে সরকার ।

তিনি আরো বলেন, পরিস্থিতি এখনকার মতো থাকলে আগামী দুই বছরে ইলিশ উৎপাদন বেড়ে প্রায় সাত লক্ষ মেট্রিক টন এ দাঁড়াবে।

তিনি আরো বলেন বাংলাদেশ এখন ইলিশ রপ্তানিতে বিশ্বে এক নাম্বারে। তাই এক নম্বরে থাকা সত্ত্বেও গ্রাম বাংলার অনেকেই ইলিশের স্বাদ এখন পর্যন্ত নিতে পারিনি , আগে গ্রামের সকল মানুষের ইলিশ খাওয়ার সুযোগ করে পরবর্তীতে ইলিশ রপ্তানী করা যাবে বলে জানান মন্ত্রী।

আরও পড়তে পারেন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *